Tuesday, 21 May 2019

বিশ্বের শীর্ষ ১০টি "ধনী" ব্যাংক!

ব্যাংকসমূহে আমরা মুলত আমাদের অর্থ, টাকা-পয়সা সহ মূল্যবান সকল জিনিস জমা রাখি। আর ফাইনালশিয়াল ক্রাইসিসের পর বিশ্বের আর্থিক অবস্থা এখন পুরোপুরি ব্যাংকের উপর নির্ভর করে। যে দেশের ব্যাংকগুলো বেশি “ধনী“, সে দেশ ততটাই অর্থনৈতিক দিক থেকে সুরক্ষিত থাকে।
তো চলুন, আর কথা না বাড়িয়ে সরাসরি টিউনে চলে যাই, আর আসুন দেখে নেই বিশ্বের ধনী ১০টি ব্যাংকগুলো সম্পর্কে কিছু তথ্য:

১০) Barclays PLC:

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের স্পন্সর এবং ইউনাইটেড কিংডম মার্কেটের একটি অন্যতম লিডার হচ্ছে এই Barclays PLC Bank. এই ব্যাংকটি প্রায় ৫০টির বেশি দেশে প্রায় ৪৮ মিলিয়নের বেশি লোকজনের কাছে তাদের ব্যাকিং কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। ব্যাংকটি তাদের কাস্টমারদের জন্য রিটেইল অপারেশন, হোলসেল অপারেশন, ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংকিং, ওয়েলথ ম্যানেজমেন্ট, মর্টেজ ল্যান্ডিং, ক্রেডিট কার্ড সহ বিভিন্ন ধরনের সেবা দিয়ে আসছে। ব্যাংকটি ১৬৯০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ৩০০ বছর পর বর্তমান যুগে বিশ্বের ১০টি শীর্ষ ধনী ব্যাংকের তালিকায় ব্যাংকটি ২ দশমিক ২৬ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্য ভ্যালু নিয়ে তালিকার ১০তম স্থানে রয়েছে।

৯) Credit Agricole Group:

প্রায় ২১ মিলিয়নের বেশি ক্লায়েন্ট নিয়ে ফ্রান্সের অন্যতম একটি লিডিং ব্যাংক হচ্ছে Credit Agricole Group. বিশ্বের প্রায় ৬০টির বেশি দেশে ব্যাংকটির শাখা রয়েছে, আর ব্যাংকটির মূল হেডকোয়াটার প্যারিসে অবস্থিত। ব্যাংকটির কৃষি কাজের সাথে ঐতিহাসিক সম্পর্ক থাকায় অনেকেই এটিকে Green Bank নামেও আখ্যায়িত করে থাকেন। ব্যাংকটি ১৮৯৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হবার পর বর্তমানে এর ভ্যালু প্রায় ২ দশমিক ৩৫ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারে এসে দাড়িয়েছে। ব্যাংকটি ফ্রান্সের ৩৯টি ফ্রেঞ্চ কো-অপারেটিভ রেটেইল ব্যাংকগুলোর উপর ভিক্তি করে নির্মিত হয়।

৮) Bank of China:

চীন দেশের সবথেকে পুরোনো ব্যাংক, Bank of China প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯১২ সালে এবং বর্তমানে এটি চীন দেশের ৫টি বড় ব্যাংকগুলোর মধ্য থেকে একটি অন্যতম ধনী ব্যাংক হিসেবে নিজের স্থান করে নিয়েছে। ব্যাংকটি ২০১৪ সালের রিপোর্ট অনুযায়ী প্রায় ২.৩৫ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারের ভ্যালূর মালিক!
ব্যাংকটির আরেকটি বৈশিষ্ট্য হলো, চীনে অবস্থিত এর মূল হেডকোর্য়াটের আপনি টাকা ডিপোজিট করলে চীন দেশের বাহিরে অবস্থিত অনান্য দেশের ব্র্যাঞ্চে আপনি এই টাকায় একসেস করতে পারবেন না। আর অনান্য দেশে ব্যাংকটির শুধুমাত্র আমেরিকান ডলারের হিসেবে ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালিত হয়।

৭) Agricultural Bank of China:

চীন দেশের নতুন ব্যাংকগুলোর মধ্যে এই Argicultural Bank of China হচ্ছে অন্যতম, ১৯৭৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হবার পর মাঝে কিছু বছর ব্যাংকটির উত্থান পতনের পর বর্তমানে ব্যাংকটির ভ্যালু প্রায় ২ দশমিক ৪৩ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার ছাড়িয়েছে। ব্যাংকটির প্রায় ২৪ হাজারের বেশি ব্রাঞ্চ রয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। বিশ্বের ১০টি শীর্ষ ধনী ব্যাংকের তালিকায় থাকা এই ব্যাংকটি ব্যাংকিং ইতিহাসের সবথেকে ব্যাংক ডাকাতিরও চিহ্ন বয়ে বেড়াচ্ছে। ব্যাংকটি থেকে প্রায় ৭ দশমিক ৫ মিলিয়ন মাকির্ন ডলার ডাকাতি করা হয়েছিল!

৬) JPMorgan Chase & Co:

২ দশমিক ৪৭ মিলিয়ন ভ্যালু নিয়ে আমাদের বিশ্বের শীর্ষ ১০টি ধনী ব্যাংক তালিকার প্রথম মার্কিন ব্যাংক হচ্ছে এই JpMorgan Chase & Co. এই ব্যাংকটি আমেরিকায় কয়েকটি বৃহৎ বৃহৎ ব্যাকিং কোম্পানি নিয়ে গঠিত। এগুলো মধ্যে Chase Manhattan Bank, Bank One, Bear Steans, Washigton Mutual ইত্যাদি ব্যাকিং কোম্পানিগুলো রয়েছে। ২০০০ সালে গঠিত এবং প্রতিষ্ঠিত এই ব্যাংকটি বর্তমানে US Open, The Major League Soccer এর মতো বড় বড় আসরের স্পন্সর হিসেবে রয়েছে।



৫) Mitsubishi UFJ Financial Group:

জাপানিজ ব্যাংকিং ইতিহাসের অন্যতম পুরোনো এবং বৃহৎ ব্যাংকিং সংস্থা Mitsubishi UFJ Financial Group টি প্রায় ২০০ বছর আগে ১৮৮০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। আর এদিকে ২০০৫ সালে ব্যাংকটির একচুয়াল ফর্মে আনা হয় Mitsubishi Tokyo Financial Group এবং UFJ Holdings কোম্পানিগুলোকে একত্রে করে। ব্যাংকটি আমাদের তালিকায় ৫ নম্বরে প্রায় ২ দশমিক ৫১ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার ভ্যালু নিয়ে রয়েছে।

৪) BNP Paribas:

ফ্রান্সের অন্যতম বড় ব্যাংকিং সংস্থা BNP Paribas তাদের প্রায় ২ দশমিক ৬ ট্রিলিয়ন ভ্যালু নিয়ে আমাদের লিস্টের ৪র্থ স্থানে রয়েছে। ব্যাংকটির প্রথম হেডকোয়াটার প্যারিয়ে এবং অন্যটি লন্ডনে অবস্থিত। ব্যাংকটি ২০০০ সালে কয়েকটি ব্যাংকের একত্রকরণ চুক্তিবদ্ধের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত হয়।

৩) China Construction Bank Corporation:

China Construction Bank Corporation এর হেডকোয়াটার বেইজিং, চীনে অবস্থিত এবং ব্যাংকটির চীনে প্রায় ১৩, ৫০০ হাজারের বেশি ব্রাঞ্চ রয়েছে। ১৯৫৪ প্রতিষ্ঠিত এবং ১৯৯৬ সালে নাম পরিবর্তনের পর ব্যাংকটি বর্তমানে ২ দশমিক ৬০ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার নিয়ে চীনের ২য় বৃহৎ ব্যাংক এবং আমাদের লিস্টের ৩নং স্থানে রয়েছে। Global ATM Alliance এর একজন সদস্য হিসেবে ব্যাংকটি বিশ্বের অনান্য শাখা থেকে কোনো ফি ছাড়াই টাকা উঠানোর ব্যবস্থা রয়েছে।

২) HSBC Holdings:

১৮৬৫ সালে প্রতিষ্ঠিত এই বৃটিশ ব্যাংক কোম্পানিটি ৮৫টি দেশের শাখা নিয়ে তাদের ২ দশমিক ৭৫ ট্রিলিয়ন ডলার ভ্যালু নিয়ে আমাদের লিস্টের ২য় নাম্বারে রয়েছে! ১৮৬৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হলেও ব্যাংকটি ১৯৯১ সালে হংকং এবং Shanghai Banking Corporation এর দ্বারা পুনরায় চালু করা হয়। এটি বর্তমানে হংকংয়ের সব থেকে বড় এবং বৃহৎ ব্যাংকিং কোম্পানি।



১) Industrial and Commercial Bank of China:

চীন! Made in China! হ্যা! বিশ্বের সবথেকে ধনী ব্যাংকটিও Made in China! Industrial and Commercial Bank of China তাদের প্রায় ৩ দশমিক ১৮ ট্রিলিয়ন ভ্যালু নিয়ে আমাদের বিশ্বের ধনী ১০টি ব্যাংক তালিকার সর্বউপরে রয়েছে। ব্যাংকটির শুধুমাত্র চীনেই প্রায় ১৮০০০ এর বেশি শাখা রয়েছে এবং বিশ্বের প্রায় ১০৬টি দেশে তাদের ব্রাঞ্চ রয়েছে।
তো দেখা যাচ্ছে বিশ্বের শীর্ষ ধনী ১০টি ব্যাংক তালিকার মধ্যে ৪টিই চীন দেশের ব্যাংক রয়েছে। তার মানে বৈশ্বিক অর্থনীতে চীনের ভূমিকায় কতটুকু তা নিশ্চয় এই টিউন থেকে বুঝতে পেরেছেন। Industrial and Commercial Bank of China ব্যাংকটির বিশ্বব্যাপী প্রায় ৩০০ মিলিয়নের বেশি কাস্টমার রয়েছে। ১৯৮৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হওয়া এই ব্যাংকটি লিমিটেড কোম্পানি থেকে ২০১০ সালের মধ্যেই বিশ্বের বৃহৎ পাবলিক ব্যাংকিং কোম্পানিতে পরিণত হয়ে যায়।
তো লিস্টের ১০টি ব্যাংক থেকে আপনিও একটিতে আপনার টাকাগুলে রেখে দিতে পারেন যদি আপনি আপনার বর্তমান ব্যাংকের নিরাপত্তা নিয়ে সংঙ্কায় থেকে থাকেন।

1 comment:

পোস্ট পড়ার পর অবশ্যই মন্তব্য করবেন। কারণ আপনার একটি মন্তব্য পোস্ট লেখককে ভাল কিছু লিখতে অনুপ্রাণিত করে। তবে এমন মন্তব্য করবেন না, যা লেখকের মনে আঘাত হানতে পারে।