Featured

এবার হাতের ইশারায় যেকোনো স্মার্ট ডিভাইসকে নিয়ন্ত্রণ করুন

বর্তমানে প্রায় সকল স্মার্ট ডিভাইসগুলো একে একে টাচস্ক্রিণ ফিচারে চলে এসেছে। মোবাইল ফোন থেকে শুরু করে এখন টিভি, ল্যাপটপের ডিসপ্লেগুলোতেও টা...

Thursday, 9 May 2019

অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স আবেদন পদ্ধতি




আজকের টিউটোরিয়ালটি হলো অনলাইনের মাধ্যমে পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের আবেদন পদ্ধতি নিয়ে। আমরা অনেকেই আছি জীবিকার্জনের তাগিদে হোক বা অন্য যেকোন কারণেই হোক বিদেশে পাড়ি জমাই। আর এই বিদেশ পাড়ি জমানোর আগে আমাদেরকে পাসপোর্ট এবং পুলিশ ভেরিফিকেশনের সার্টিফিকেট যোগাড় করতে হয়। পুলিশ ভেরিফিকেশনকেই আসলে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স বলা হয়। যা এখন অনলাইন সিস্টেম করা হয়েছে। যার কারণে আপনি নিজেনিজেই আপনার পুলিশ ভেরিফিকেশনের কাজটি সেরে নিতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে অনলাইনে কয়েকটি ধাপে আবেদন করতে হবে। আবেদন করার পর শহর হলে ৭ দিন আর গ্রামগঞ্জে হলে ১৫ দিনের মধ্যে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটটি হাতে পাবেন। তো তা কিভাবে করবেন তা জানতে সম্পূর্ণ টিউটোরিয়ালটি ভালো করে লক্ষ করুন।
পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পেতে প্রথমে আপনাকে একটি ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। সাইটটির লিংক – www.pcc.police.gov.bd হচ্ছে এটি। লিংকটিতে ক্লিক করে সাইটটিতে প্রবেশ করুন। 
সাইটটিতে প্রবেশ করার পর উপরের স্ক্রিনশটের মত দেখতে পারবেন। এখানে লক্ষ করুন দুইটি বাটন রয়েছে, Login এবং Registration. আপনি যদি আগেই সাইটটিতে রেজিস্ট্রশন করে থাকেন, তাহলে Login বাটনে ক্লিক করুন। আর যদি না করে থাকেন, তাহলে Registration বাটনে ক্লিক করুন। 
Registration বাটনে ক্লিক করার পর একটি রেজিস্ট্রশন ফরম আসবে ঠিক উপরের স্ক্রিনশটের মত। এখানে আপনাকে আপনার নাম, ইমেইল অ্যাড্রেস, মোবাইল নম্বর, পাসওয়ার্ড, কনফার্ম পাসওয়ার্ড এবং যোগফল দিয়ে Continue বাটনে ক্লিক করতে হবে। 
তারপর উপরের স্ক্রিনশটের মত আসবে। যাতে দেখাবে ৫ মিনিটের মধ্যে অ্যাকাউন্টটি অ্যাক্টিভ করতে ইমলেইল অথবা মোবাইলে ভেরিফিকেশন করতে। তো এইক্ষেত্রে আপনি যে ইমেইল অ্যাড্রেস দিয়েছিলেন সেটিতে প্রবেশ করুন। তারপর দেখুন ইনবক্সে পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের একটি ম্যাসেজ আছে ওটাতে ক্লিক করুন। তারপর সেখানে যে লিংকটি আছে ওটাতে ক্লিক করে ভেরিফাই করে নিন। আর যদি মোবাইল নম্বর দিয়ে ভেরিফাই করতে চান, তাহলে মোবাইলের ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে টাইপ করুন উপরের স্ক্রিনশটের মত সিলেক্টকৃত লেখাটি। তারপর 6969 নম্বরে সেন্ড করুন। ব্যাস আপনার অ্যাকাউন্টটি অ্যাক্টিভ হয়ে গিয়েছে। এখন সাইটটিতে লগিন করতে স্ক্রিনশটের মত Apply বাটনে ক্লিক করুন। 
তারপর উপরের স্ক্রিনশটের মত আপনি যে অ্যাকাউন্ট খোলার সময় যে মোবাইল নম্বর দিয়েছেন এবং যে পাসওয়ার্ড দিয়েছেন তা দিয়ে Login বাটনে ক্লিক করুন। 
তারপর উপরের স্ক্রিনশটের মত পার্সোনাল ইনফরমেশন তথ্য পূরণের একটি ফরম আসবে। এই ফরমটি পূরণ করুন। এখানে আপনার পাসপোর্ট নম্বর, ইস্যুর তারিখ, ইস্যুর জায়গা ও মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ উল্লেখ করুন। মোবাইল নম্বর উল্লেখ করুন।
তারপর ইমেইল অ্যাড্রস এবং জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর দিন যদি থাকে। আপনার পুরো নাম পাসপোর্টে যেভাবে দেওয়া আছে, পিতার বা স্বামীর নাম, মাতার নাম, জন্মতারিখ, লিঙ্গ ও ছবি সিলেক্ট করে দিন। ছবিটি অবশ্যই ১৫০ কেবির ভিতরে হতে হবে। তারপর Save & Next বাটনে ক্লিক করুন। 

তারপর উপরের স্ক্রিনশটের মত অ্যাড্রেস দিতে হবে। এখানে আপনাকে (১) বর্তমান ঠিকানার স্থানে জেলা, উপজেলা, গ্রাম, পোস্ট অফিস, পোস্ট কোড ইত্যাদি তথ্য দিতে হবে। স্থায়ী ঠিকানাও যদি বর্তমান ঠিকানার মত একই হয় তাহলে Same as present address এ ঠিকচিহ্ন দিন। তারপর পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের সার্টিফিকেটটি আপনি কিভাবে পেতে চান তা উল্লেখ করুন হাতে হাতে নাকি কুরিয়ারের মাধ্যমে। হাতে হাতে পেতে চাইলে By Hand সিলেক্ট করুন। তারপর উপজেলার থানায় থেকে নিতে চান নাকি জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয় থেকে নিতে চান তা উল্লেখ করে দিন। Save & Continue বাটনে ক্লিক করুন।
তারপর আপনাকে উপরের স্ক্রিনশটের মত আপনার পাসপোর্টের স্ক্যান কপি আপলোড দিতে হবে অন্যগুলো দেওয়া লাগবে না। এর জন্য আপনাকে add বাটনে ক্লিক করার পর আপনার পাসপোর্টের স্ক্যান কপিটি কম্পিউটারে যেখানে আছে সেখান থেকে অ্যাড করে দিন। কপিটি যুক্ত হলে ঠিক স্ক্রিনশটের মত সবুজ টিকচিহ্ন উঠবে। এইরকম হওয়ার পর Save & Continue বাটনে ক্লিক করুন।
তারপর উপরের স্ক্রিনশটের মত আপনার দেওয়া সবগুলো তথ্য দেখতে পারবেন। এখানে আপনাকে ভালো করে দেখতে হবে যে, কোনো তথ্য ভুল রয়েছে কিনা। যদি ভুল থাকে তাহলে Edit বাটনে ক্লিক করুন। আর যদি সব ঠিক থাকে তাহলে Final Submit এ টিকচিহ্ন দিয়ে Confirm বাটনে ক্লিক করুন।

তারপর উপরের স্ক্রিনশটের মত আসবে। এখন আপনাকে এই আবেদন এবং সার্টিফিকেটের ফি বাবদ ৫০০/- টাকা পেমেন্ট করতে হবে। তা করতে স্ক্রিনশটের মত Pay Offline বাটনে ক্লিক করতে হবে।
তারপর উপরের স্ক্রিনশটের মত আসবে। এখানে আপনাকে প্রথমে একটি ট্রেজারি চালান কপি প্রিন্ট দিতে হবে। তাই (১) স্ক্রিনশটের মত Click Here লেখাটিতে ক্লিক করুন। ক্লিক করার পর (২) স্ক্রিনশটের মত একটি চালান ফরম আসবে এটি ডাউনলোড করে নিন। তারপর আপনার সুবিধামত আপনার পার্শ্ববর্তী সোনালী ব্যাংকে চালান ফরমটি নিয়ে ৫০০/- টাকা পেমেন্ট করে চালান ফরমটি নিয়ে আসুন এবং এটিকে স্ক্যানার দিয়ে স্ক্যান করে কম্পিউটারে সেভ করে নিন।
তারপর উপরের স্ক্রিনশটের মত আগের উইন্ডো/ট্যাবটিতে গিয়ে স্ক্যান করা চালান কপিটি আপলোড দেওয়ার জন্য বাম পাশের স্ক্রিনশটের মত সিলেক্টকৃত Click here লেখাটিতে ক্লিক করুন। তারপর ডানপাশের স্ক্রিনশটের মত আসবে। এখানে আপনাকে ব্যাংকের নাম সিলেক্ট করতে হবে যে, সোনালী ব্যাংক নাকি বাংলাদেশ ব্যাংক। ব্যাংকটি কোন জেলায়, কোন শাখায়, চালান ফরম যেদিন জমা দিয়েছেন সেদিনের তারিখ, চালান নম্বর। তারপর স্ক্যান করা চালান কপিটি আপলোড দিয়ে Upload বাটনে ক্লিক করুন।
তারপর উপরের স্ক্রিনশটের মত Finish বাটনে ক্লিক করুন।
তারপর উপরের স্ক্রিনশটের মত দেখতে পারবেন আপনার আবেদনটি সাবমিট হয়েছে। উল্লেখ্য আপনি চাইলে আপনার আবেদনটি কী অবস্থায় আছে তা জানতে স্ক্রিনশটের মত মোবাইলের ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে PCC S Ref no লিখে তারপর 6969 নম্বরে সেন্ড করুন। তারপর ফিরতি ম্যাসেজের মাধ্যমে তা জানতে পারবেন।
বলতে বলতে অনেক কথাই বলে পেললাম। আর আজকের টিউটোরিয়ালটিও অনেক বড় হয়ে গেল। তাই আপনাকে পুরো বিষয়টা ভালো করে বুঝতে টিউটোরিয়ালটি ভালো করে ফলো করতে হবে। আর হ্যাঁ, কোনো স্থানে যদি আপনাদের বুঝতে কোনো সমস্যা হয় তাহলে নিচের কমেন্ট বক্সের মাধ্যমে জিজ্ঞেস করতে পারেন।

No comments:

Post a Comment